সরাসরি প্রধান সামগ্রীতে চলে যান

পোস্টগুলি

October 25, 2018 থেকে পোস্টগুলি দেখানো হচ্ছে

রূঅবাক্ষ

বায়োকেমিক্যাল টেকনোলজি
গোয়েন্দা বইয়ের পাতা দ্বিতীয় লাইন। টেবিলের ওপরে বরফের টুকরো একটা নেল কাটার পেন্সিল, গোটা কয়েক খোসা ছাড়ানো বাদাম আর কয়েকটা কাৎ করে রাখা প্রশ্নচিহ্ন।
মুখোমুখি তারা দুজন বসেছে, না তিন বলাই ভাল। কোণাকুণি রোদ অবিবেচক ছায়াটাও এখানে তার স্থিতী। তারা বহুক্ষণ হল প্রায় একে অন্যকে মুখ বুজে, হাতের আঙুলগুলোও ঘনিষ্ট, ডান হাঁটুর ছড়ে যাওয়া জ্বালাটা চিড়বিড় চিড়বিড় করছে।
অ্যাআ হ্যায়া অ্যা  ..................
অল্প টেবিল সরার আওয়াজ, জলের গ্লাস পড়ে যাবার শব্দ গোড়ালি ভিজে উঠছে।
সাঁতার কি বালির নিজস্ব কোনো? প্রশ্নটা কাকে করা হল! এখনও দুজনে নিশ্চুপ, শুধু জলের গ্লাসটা নিজের জায়গায় ফিরে এসেছে, এবার উপুড়

মাঝের পাতাগুলো নেই। একদম শেষের আগের লাইন বিচারে ফাঁসি সাব্যস্ত হয়েছে। পাঁচদিন পরের একটা ভোর। কিন্তু একদম শেষ লাইনে, ঘর মুখোমুখি দুটো চেয়ার, ছাড়ানো বাদামের খোলা, জলের গ্লাস আর তারা তিনজন! আজও জানলার কোণাকুণি রোদ পড়েছে ছায়া


        ।।অহনা সরকার।।
           #অক্টোবর'